ইঞ্জিনিয়ারিং ম্যাটেরিয়ালসঃ পাথরের প্রয়োগ

ইঞ্জিনিয়ারিং ম্যাটেরিয়ালস

০১. নির্মান সামগ্রির রাজা বলা হয় কাকে? – পাথরকে।

০২. খনিজ পদার্থের জটিল রাসায়নিক যৌগকে কী বলে? – পাথর ।

০৩. পাথরে খনিজ উপাদানের সংখ্যা কত? – প্রায় ২০০ টি ।

০৪. সিলিকন-ডাই-অক্সাইড বা বিশুদ্ধ বালিকে কী বলে? – কোয়ার্টজ ।

০৫. সকল প্রকার আগ্নেয় পাথরে কী পাওয়া যায়? – ফেলসপার ।

০৬. রঙিন কোয়ার্টাজ কণার মধ্যে কী থাকে? – ধাতব অক্সাইড ।

০৭. পটাশিয়াম সমৃদ্ধ সিলিকেট কী বলে? – মাইকা ।

০৮. অতিরিক্ত মাইকার উপস্থিতি পাথরকে- দুর্বল করে।

০৯. এমফিবোল (Amphibole) এর আরেক নাম কী? -হর্ণব্লেন্ড ।

১০. হর্ণব্লেন্ড কী? – ক্যালসিয়াম ও ম্যাগনেসিয়ামের সিলিকেট ।

১১. অধিকাংশ আগ্নেয় পাথরের অপরিহার্য উপাদান – হর্ণব্লেন্ড ।

১২. চুনাপাথর ও মার্বেল পাথরে আধিক্য পরিলক্ষিত – ক্যালসাইট (Calcite)

১৩. চুনাপাথর এবং চুর্ণক পাথরের প্রধান উপাদান কী? -ক্যালসিয়াম কার্বনেট

১৪. আয়রন অক্সাইডের রূপ কয়টি? – ৩টি

১৫. কেলাসিত, স্বচ্ছাকার, ও মোটা দানা বিশিষ্ট হয় – গ্রানাইট

১৬. সহজে কাটা যায় না তবে উত্তমরূপে পালিশ হয় – গ্রানাইট

১৭. গ্রানাইট পাথরের ব্যবহৃত হয় -কারুকার্যে, রেলপথের ব্যালাস্ট, খোয়া

১৮. গ্রানাইট অপেক্ষা ভারী – ট্রাপ (Trap).

১৯. ক্ষুদ্র ও গোলাকার দানা বিশিষ্ট পাথর কোনটি? – বেলে পাথর

২০. আবহাওয়া দ্বারা সহজেই আক্রান্ত হয় – চুনাপাথর।

২১. চুনাপাথরে বেশিরভাগ কী উপস্থিত থাকে?-ক্যালসিয়াম কর্বনেট

২২. খেলনা ও সিরামিক দ্রব্যাদি তৈরিতে ব্যবহৃত হয়  – শেল পাথর

২৩. বালুকাযুক্ত কাদা পাথরকে কি বলে? – ল্যাটারাইট বা লৌহপাথর

২৪. বেলে পাথর রূপান্তরিত হয়ে কী সৃষ্টি হয়? -কোয়ার্টজাইট (Quartzite)

২৫. গভীর নীল এবং নীলাভ কৃষ্ণবর্ণের পাথর – স্লেট (Slate)

২৬. বিদ্যুতের সুইচ বোর্ড তৈরিতে ব্যবহৃত হয়- স্লেট পাথর

২৭. চুনা পাথর রূপান্তরিত হয়ে কোন পাথর সৃষ্টি হয়? – মার্বেল পাথর

২৮. পানি ক্ষয়িত অনেকটা গোলাকৃতির বড় পাথরই- বোল্ডার

২৯. পানি ক্ষয়িত অপেক্ষাকৃত বড় নুড়িপাথরকে বলে – শিঙ্গেল

৩০. ভূতত্ত্বগত দিক দিয়ে পাথরকে ভাগ করা হয় – ৩ ভাগে

৩১. ভূ-গর্ভস্থ গলিত লাভা ভূ-পৃষ্টে উৎক্ষিপ্ত হয়ে সৃষ্ট – আগ্নেয় পাথর

৩২. গ্রানাইট, ট্রাপ, ব্যাসল্ট, ডুলাবাইট অন্তর্ভুক্ত – আগ্নেয় পাথরে

৩৩. প্রাকৃতিক দুর্যোগে আগ্নেয় পাথর ক্ষয়প্রাপ্ত হয়ে সৃষ্ট – পাললিক পাথর

৩৪. বেলেপাথর, চুনা পাথর শেল আওতাভুক্ত – পাললিক পাথরে

৩৫. আগ্নেয় ও পাললিক পাথর রূপান্তর হলো – রূপান্তরিত পাথরে

৩৬. চুনাপাথর রূপান্তরিত হয়ে কোন পাথর সৃষ্টি হয়? – মার্বেল পাথর

৩৭. কর্দম পাথর রূপান্তরিত হয়ে কোন পাথর সৃষ্টি হয়? – শ্লেট পাথরে

৩৮. প্রকৌশল বা রাসায়নিক দিক দিয়ে পাথর – ৩ প্রকার

৩৯. মৃত্তিকাত্বক পাথরের প্রধান উপাদান কী? -কাদা

৪০. মৃত্তিকাত্বক পাথরের উদাহরন হলো – স্লেট পাথর

৪১. বালুকাত্বক পাথরের প্রধান উপাদান কী? – সিলিকা বা বিশুদ্ধ বালি

৪২. বালুকাত্বক পাথরের উদাহরন হলো – গ্রানাইট

৪৩. পাথরের অণুসমূহ সজ্জিত থাকাকে কী বলে? – গঠন বিন্যাস

৪৪. পাললিক পাথরের বৈশিষ্ট্য কী? – স্তরীভূত গঠন

৪৫. পাথরের প্রকৃতিক শক্তি দ্বারা ক্ষয়রোধের ক্ষমতাকে বলে – স্থায়ীত্বতা

৪৬. চুনাপাথরের আয়ুষ্কাল কত বছর? – ৪০-৬০ বছর

৪৭. পাথরের ছিদ্রযুক্ত জায়গার শতকরা হারকে বলে – সচ্ছিদ্রতা

৪৮. সাধারণত ভারী পাথরের সচ্ছিদ্রতার হার কত? – ০% থেকে ৪%

৪৯.   মার্বেল পাথরের শোষ্যতার হার কত? – ১%

৫০. বেলে পাথরের শোষ্যতার হার কত? – ২০%

৫১. যে পাথরের ওজন যত কম, তার – শক্তি তত কম

৫২. একত্রে দৃঢ়ভাবে চাপ প্রতিরোধ ক্ষমতাকে বলে – দৃঢ়তা

৫৩. মার্বেল ও চুনাপাথর ক্যালসাইটে রূপ নেয় – ৬০০-৮০০ ডিগ্রি/সে. তাপে

৫৪. ঋতুসহনের জন্য পাথরকে খোলা বাতাসে রাখা হয় – ৬ থেকে ১২ মাস।

৫৫. পাথরের অবয়ব, বর্ণ, ওজন, গঠন নিরীক্ষা করা হয় – মাঠ পরীক্ষায়

৫৬. পাথরের সংশক্তি ও ঘনসন্নিবিষ্টতা জানার জন্য করা হয় – Brad’s Test

৫৭. Brad’s Test এ নমুনা পাথরের সাইজ কত? – 5cm x 5cm x 5cm

৫৮. কাদা ও দ্রবণীয় খনিজ আছে কি না জানা যায় – Smith’s Test-এ

৫৯. শক্তি পরীক্ষার জন্য কি টেষ্ট করা হয়? – Strength Test

৬০. Strength Test এর জন্য ঘনকের সাইজ কত? – 10cm x 10cm x 10cm

৬১. ভালো গ্রানাইট পাথরের সংকোচন শক্তি কত?-1200 kg/cum

৬২. ভালো পাথরের ক্ষয়প্রাপ্তের পরিমাণ কত? – ২% এর অধিক নয়

৬৩. শোষ্যতা পরিমাণের সূত্র কী? *(W1-W)/(W1-w2) শতকারা হার

৬৪. বাংলাদেশে চুনাপাথরের প্রাপ্তিস্থান কোথায়? – সিলেট

3 thoughts on “ইঞ্জিনিয়ারিং ম্যাটেরিয়ালসঃ পাথরের প্রয়োগ”

  1. An impressive share! I have just forwarded this onto
    a coworker who had been conducting a little homework on this.
    And he in fact ordered me dinner because I stumbled upon it for him…
    lol. So let me reword this…. Thanks for the meal!!
    But yeah, thanks for spending the time to discuss
    this matter here on your website.

    Reply

Leave a Comment